Sunday, December 4, 2022
Homeপ্রাইমারি টেটপ্রাইমারি টেট বাংলা নমুনা প্রশ্ন ও উত্তর

প্রাইমারি টেট বাংলা নমুনা প্রশ্ন ও উত্তর

পর্ষদ কর্তৃক বাংলা বিষয়ের মডেল প্রশ্নের উত্তর

পর্ষদের প্রাইমারি টেট বাংলা বিষয়ের নমুনা প্রশ্নের উত্তর | WB Primary TET Bengali Subject Model Questions Answers

প্রাইমারি টেট বাংলা নমুনা প্রশ্ন ও উত্তর
প্রাইমারি টেট বাংলা নমুনা প্রশ্ন ও উত্তর

সুপ্রিয় বন্ধুরা,
পশ্চিমবঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ বাংলা বিষয়ের যেসকল নমুনা প্রশ্ন দিয়েছে, সে সকল প্রশ্নের উত্তর আজ আপনাদের প্রদান করলাম। আমরা আশা রাখছি এই প্রাইমারি টেট বাংলা বিষয়ের নমুনা প্রশ্ন ও উত্তর গুলি আপনাদের পরীক্ষার প্রস্তুতিতে সাহায্য করবে। সুতরাং দেরী না করে দেখে নিন।

প্রাইমারি টেট বাংলা নমুনা প্রশ্নের উত্তর


নির্দেশঃ নিম্নলিখিত গদ্যাংশটি পাঠ করে সংশ্লিষ্ট প্রশ্নগুলির (1 থেকে 4 নম্বর প্রশ্ন) সঠিক উত্তর নির্বাচন করুনঃ

বারাকপুরে কথকঠাকুরের ভিটেয় রেড়ির তেলের মদু আলোতে শীর্ণ শ্যামকান্তি এক দরিদ্র পাঁচালীকার খসখস করে পুঁথি লিখে চলেছেন। অবাক বিস্ময়ে চেয়ে আছে এক কিশোর। দূরে, দু’ হাঁটুতে মুখ রেখে বসে আছেন আর একজন। পিতা মহানন্দ, কিশোর বিভুতি, জননী মৃণালিনী।

অনেকক্ষণ স্মৃতির অতলে ডুবে থেকে এক সময় উঠে দাঁড়ালেন বিভূতিভুষণ। সেই ছোটবেলায় স্কুল পালিয়ে সইমাদের বকুলগাছটার হেলানো গুঁড়িতে শুয়ে শুয়ে যখন বাবার লেখা ‘পশ্চিমের ডায়েরি’ পড়তেন তখন থেকেই মনের মধ্যে একটি কল্পনার কাকলিমুখর পাখি বাসা বেঁধেছিল। এ-পর্যন্ত তা সামান্য ডানা ঝাপটেছে। এবার বুঝি চঞ্চল সে মুক্তির আকাঙ্ক্ষায়।

ইসমাইলপুরে কাছারির বাইরে কাশবনের কুয়াশার সঙ্গে জ্যোৎস্নালোক তখন অপূর্ব মায়া ছড়িয়েছে। অদ্ভুত নির্জন নিস্তব্ধ চারদিক। বাবার লেখা পশ্চিমের ডায়েরিটা নিয়ে এলেন বাক্স খুলে। পূজার পিঁড়ি আনলেন। আনলেন ফুলচন্দন। তারপর – ‘বাবার পশ্চিম ভ্রমণের ডায়েরিটা ঠাকুরের পিঁড়িতে রেখে ফুলচন্দন মাখালেম। তিনি কি জানতেন তাঁর মৃত্যুর প্রায় পনের বছর পরে প্রথম যৌবনে তাঁর ছেড়া-খোঁড়া লেখা খাতাখানি বিহারের এক নির্জন কাশবনের চরের মধ্যে ফুলচন্দনে অর্চিত হবে ?’

উত্তরসাধক আজ পিতৃ-অর্চনায় বসেছেন তাঁর সাধনসিদ্ধির আশীর্বাদ প্রার্থনায়। বিহারের অরণ্যভূমির এক নির্জন রাত্রির নিস্তব্ধ পরিবেশে অকস্মাৎ যেন বারাকপুরের ইছামতী-সরস মৃত্তিকার শ্যামল সুবাস ভেসে আসে। পিতার দিনলিপিতে প্রণাম করলেন মহানন্দ-তনয়। একটি প্রতিজ্ঞা স্বাক্ষরিত হল পুত্রের দিনলিপিতে। তারিখটা এপ্রিল তিন, উনিশ শ’ পঁচিশ। বাংলা সতের বৈশাখ, তের শ’ বত্রিশ। ‘পথের পাঁচালী’ রচনার সংকল্প-দিবস। সূচনাদিবসও। ‘নিশ্চিন্দিপুর গ্রামের একেবারে উত্তরপ্রান্তে হরিহর রায়ের ক্ষুদ্র কোঠাবাড়ি’ দিয়ে শুরু।

সে-রাতে দিনলিপিতে লিখলেন, ‘জগতের অসংখ্য আনন্দের ভাণ্ডার উন্মুক্ত আছে। গাছপালা, ফুল, পাখি, উদার মাঠঘাট…..অস্তসূর্যের আলোয় রাঙা নদীতীর, অন্ধকার নক্ষত্রময়ী উদার শূন্য…জগতের শতকরা ৯৯ জন লোক এ আনন্দের অস্তিত্ব সম্বন্ধে মৃত্যুদিন পর্যন্ত অনভিজ্ঞই থেকে যায়।…

‘সাহিত্যিকের কাজ হচ্ছে এই আনন্দের বার্তা সাধারণের প্রাণে পৌঁছে দেওয়া। তারা ভগবানের প্রেরণা নিয়ে এই মহতী আনন্দবার্তা, এই অনন্ত জীবনের বাণী শোনাতে এসেছে…এই কাজ তাদের করতে হবেই…অস্তিত্বের এই শুধু সার্থকতা…।’

এ-এক মহৎ শপথ। পথের পাঁচালীতে বিভূতিভূষণ চাইছেন ‘অনন্ত জীবনের বাণী শোনাতে’। এ তো নেহাত গল্প-লেখা নয়। কয়েক পাতা লেখা হতেই কলকাতা চলে এলেন। গোলদীঘির ধারে এক সন্ধ্যায় পাতাগুলি মেলে ধরলেন নীরদ চৌধুরীর সামনে। দ্যাখো, হবে আমার ?

1. ‘বাবার লেখা পশ্চিমের ডায়েরিটা নিয়ে এলেন বাক্স খুলে’ – ‘বাক্স খুলে’ – কী জাতীয় ক্রিয়াপদ ?
A. সংযোগমূলক ক্রিয়া
B. মৌলিক ক্রিয়া
C. প্রযোজক ক্রিয়া
D. নামধাতুজ ক্রিয়া


2. ‘রাত্রি’র সমার্থক শব্দ – নীচের বিকল্পগুলির মধ্যে কোনটি সঠিক ?
A. শর্বরী, ইরম্মদ, ক্ষৌণী, নিশা
B. বিভাবরী, ক্ষণদা, ত্রিযামা, তমস্বিনী
C. যামিনী, বিভাবসু, সোম, অংশু
D. তমোগ্ন, রজনী, দীধিতি, ক্ষণা


3. ‘পথের পাঁচালী’ রচনার সূচনাদিবস –
A. এপ্রিল তের, উনিশ শ’ পঁচিশ। বাংলা সতের বৈশাখ, তের শ’ বত্রিশ
B. এপ্রিল তিন, উনিশ শ’ পঁচিশ। বাংলা সাতাশ বৈশাখ, তের শ’ বত্রিশ
C. এপ্রিল তিন, উনিশ শ’ পঁচিশ। বাংলা সতের বৈশাখ, তের শ’ বত্রিশ
D. এপ্রিল তেইশ, উনিশ শ’ পাঁচ। বাংলা সতের বৈশাখ, তের শ’ বাইশ


4. ‘উত্তরসাধক আজ পিতৃ-অর্চনায় বসেছেন তাঁর সাধনাসিদ্ধির আশীর্বাদ প্রার্থনায়’ – ‘আশীর্বাদ’ শব্দটির সন্ধিবিচ্ছেদ নীচে প্রদত্ত বিকল্পগুলির মধ্যে কোনটি সঠিক ?
A. আশিঃ + বাদ
B. আশীঃ + বাদ
C. আশীর্‌ + বাদ
D. আশির্ + বাদ


নির্দেশঃ নিম্নলিখিত কবিতাংশটি পাঠ করে সংশ্লিষ্ট প্রশ্নগুলির (5 থেকে 8 নম্বর প্রশ্ন) সঠিক উত্তর নির্বাচন করুনঃ

পাগল বসন্তদিন কতবার অতিথির বেশে
তোমার আমার দ্বারে বীণা হাতে এসেছিল হেসে
লয়ে তার কত গীত, কত মন্ত্র মন-ভুলাবার-
জাদু করিবার কত পুষ্পপত্ৰ-আয়োজনভার !
কুহুতানে হেঁকে গেছে, ‘খোলো ওগো, খোলো দ্বার খোলো।
কাজকর্ম ভোলো আছি, ভোলো বিশ্ব, আপনারে ভোলো’।
এসে এসে কত দিন চলে গেছে দ্বারে দিয়ে নাড়া-
আমি ছিনু কোন্ কাজে, তুমি তারে দাও নাই সাড়া।
আজ তুমি চলে গেছ, সে এল দক্ষিণবায়ু বাহি,
আজ তারে ক্ষণকাল ভুলে থাকি হেন সাধ্য নাহি।
আনিছে সে দৃষ্টি তব, তোমার প্রকাশহীন বাণী,
মর্মরি তুলিছে কুঞ্জে তোমার আকুল চিত্তখানি!
মিলনের দিনে যারে কতবার দিয়েছিনু ফাঁকি,
তোমার বিচ্ছেদ তারে শূন্যঘরে আনে ডাকি ডাকি !

5. কুহুতানে দ্বার খোলার কথা বলার সাথে আর কী বলা হয়েছে ?
A. কাজকর্ম ভোলো আজি, ভোলো বিশ্ব, আপনারে ভোলো
B. বিশ্ব ভোলো, আপনারে ভোলো, সবকিছু ভোলো
C. আমার দ্বারে বীণা হাতে এসেছিলে হেসে
D. কত গীত, কত মন্ত্র, মন ভুলাবার


6. পাগল বসন্ত দিন কোন বেশে এসেছিল ?
A. উদাসীন বেশে
B. অতিথির বেশে
C. বন্ধুর বেশে
D. শত্রুর বেশে


7. ‘আজ তারে ক্ষণকাল ভুলে থাকি হেন সাধ্য নাই’ – ‘ক্ষণকাল’ শব্দটির প্রতিশব্দ –
A. মুহূর্তমাত্র
B. কালের ক্ষণ
C. অনেকক্ষণ
D. অনন্তক্ষণ


৪. ‘মিলনের দিনে যারে কতবার দিয়েছিনু ফাঁকি’ – যাকে মিলনের দিনে ফাঁকি দেওয়া হয়েছিল তাকে কখন শূন্যঘরে ডাকা হল ?
A. প্রাপ্তিতে
B. মৃত্যুতে
C. বিদায়ে
D. বিচ্ছেদে


9. সুন্দর কথা বলার বৈশিষ্ট্য কোনটি নয় ?
A. শ্রবণযোগ্যতা
B. অস্পষ্টতা
C. বাকপটুত্ব
D. স্বতঃস্ফূর্ততা


10. যে ধরনের প্রশ্নের সাহায্যে শিক্ষক উদ্দেশ্যমূলকভাবে শিক্ষার্থীর জ্ঞান ও বোধের গভীরতা যাচাই করার বিষয়ে উদ্যোগী হন তা হল –
A. দক্ষতামূলক
B. অনুশীলনমূলক
C. তুলনামুলক
D. অনুসন্ধানী


11. ব্যাকরণ শিক্ষাদানের সমস্যা কোনটি নয় ?
A. যথাযথ পাঠ্যপুস্তকের অভাব
B. অবৈজ্ঞানিক শিক্ষাদান পদ্ধতির ব্যবহার
C. ব্যাকরণপাঠে শিক্ষার্থীর আগ্রহের অভাব
D. চিত্তাকর্ষক ও যথাযথ শিক্ষা-সহায়ক প্রদীপনের ব্যবহার


12. শিক্ষা-সহায়ক উপকরণ প্রসঙ্গে কোন মন্তব্যটি সঠিক নয় ?
A. শিখন উদ্দেশ্যের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ
B. আকর্ষণীয় ও চিত্রসহযোগে প্রকাশিত
C. শিশুমনের উপযোগী
D. শিক্ষার্থীদের পাঠের প্রতি মনোযোগী করে না


RELATED ARTICLES

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Recent posts

popular posts