Sunday, December 4, 2022
Homeজীবনীএ.পি.জে. আব্দুল কালামের জীবনী | A. P. J. Abdul Kalam Biography in...

এ.পি.জে. আব্দুল কালামের জীবনী | A. P. J. Abdul Kalam Biography in Bengali

এ.পি.জে. আব্দুল কালামের জীবনী PDF | A. P. J. Abdul Kalam Biography in Bengali PDF

এ.পি.জে. আব্দুল কালামের জীবনী
এ.পি.জে. আব্দুল কালামের জীবনী

সুপ্রিয় বন্ধুরা,
আজ আমরা আপনাদের কাছে তুলে ধরেছি, মিসাইল ম্যান এপিজে আব্দুল কালামের আত্মজীবনী। আমরা আশাবাদী আপনারা এই পোস্টটির মাধ্যমে ভারতরত্ন এপিজে আব্দুল কালামের জীবনী সম্বন্ধে পুঙ্খানুপুঙ্খ তথ্য জানতে পারবেন।

এ.পি.জে. আব্দুল কালামের জীবনী :

আপনি একটিও হিন্দু-মুসলমান তথা ভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষকেও দেখাতে পারবেন না, যিনি এই মানুষটিকে সম্মান করেন না। তিনিই হলেন ভারত তথা যুব সমাজের আইকন মিসাইল ম্যান এপিজে আব্দুল কালাম। একজন পেপার বিক্রেতাও যে তার কর্ম, নিষ্ঠা ও সরল জীবনযাপনের মাধ্যমে একটি দেশের সর্বোচ্চ সম্মানের পদে অধিষ্ঠিত হতে পারেন তার এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হল ভারতরত্ন এপিজে আব্দুল কালাম মহাশয়।

নামআবুল পাকির জয়নুল আবেদিন আব্দুল কালাম
জন্ম১৫ই অক্টোবর ১৯৩১
জন্মস্থানরামেশ্বরম, রামনাথস্বামী জেলা, মাদ্রাজ প্রেসিডেন্সি, ব্রিটিশ ভারত (অধুনা ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যে)
মৃত্যু২৭শে জুলাই ২০১৫
মৃত্যুর কারণহৃদরোগ
ধর্মইসলাম

আবুল পাকির জয়নুলাবেদিন আব্দুল কালাম ওরফে এপিজে আব্দুল কালাম তথা ভারতের একাদশতম রাষ্ট্রপতি তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের মাদ্রাজ প্রেসিডেন্সির রামনাথস্বামী জেলার রামেশ্বরোমে অর্থাৎ অধুনা ভারতবর্ষের তামিলনাড়ু রাজ্যের রামেশ্বরমের এক তামিল মুসলমান পরিবারে ১৫ই অক্টোবর ১৯৩১ সালে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা আবুল পাকির জয়নুলাবেদিন ছিলেন একজন ইমাম মহাশয় এবং মাতা গৃহবধূ অশিযাম্মা মহাশয়ের পাঁচ সন্তানের কনিষ্ঠ সন্তান হলেন আব্দুল কালাম মহাশয়। ছোটবেলা থেকে মেধাবী কর্মপ্রিয় মানুষটির পারিবারিক অবস্থা মোটেও সুখদায়ক ছিল না, ফলতু পরিবারের ভরণপোষণের দায়িত্ব অতি কষ্টে করেই পালন করতে হয়েছিল।

শিক্ষা জীবন :

অত্যন্ত গরীব পরিবার থেকে সংগ্রাম করা সেই সাধারণ মানের ছাত্রটির শৈশব থেকেই ছিল শিক্ষাগ্রহণের তীব্রবাসনা। নিজ প্রচেষ্টায় প্রাথমিক শিক্ষা অর্জনের পর রামনাথপুরোম স্কোয়ার্টজ ম্যাটিকুলেশন স্কুল থেকে শিক্ষা সম্পূর্ন করার পর তিরুচিরাপল্লীর সেন্ট জোসেফস কলেজে ভর্তি হন ১৯৫৪ সালে তিনি এই কলেজ থেকেই পদার্থ বিজ্ঞানে স্মাতক হন।

এরপর তিনি ১৯৫৫ সালে মাদ্রাজে চলে আসেন। এখানেই তিনি মাদ্রাজ ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি থেকে বিমানপ্রযুক্তি বিষয়ে শিক্ষা লাভ করেন।

কর্মজীবন :

১৯৬০ সালে স্নাতক সম্পন্ন করার পর ভারতীয় প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থার এরোনোটিক্যাল ডেভলপমেন্ট এস্টাব্লিশমেন্টে একজন বিজ্ঞানী হিসাবে যোগদান করেন। এছাড়াও তিনি ভারতীয় জাতীয় মহাকাশ গবেষণা কমিটিতে প্রখ্যাত মহাকাশ বিজ্ঞানী ড. বিক্রম সারাভাইয়ের অধীনে কাজ করতেন। এরপর তিনি ১৯৬৯ সালে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থায় বদলি হন। যেখানে তিনি ১৯৭০ থেকে ১৯৯০ সালের মাঝে ভারতের কৃত্রিম উপগ্রহ পিএসএলভি এবং এসএলভি-lll প্রকল্পের পরিচালক ছিলেন এবং সফলও হয়েছেন। এরপর তিনি ২০০২ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত ভারতের রাষ্ট্রপতি ছিলেন। রাষ্ট্রপতি পদ থেকে অবসর গ্রহণের পর তিনি ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্ট শিলং, ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্ট আহমেদাবাদ, ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্ট ইন্ডোরের ভিজিটিং প্রফেসর হন। তিনি হায়দ্রাবাদের ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ইনফরমেশন টেকনোলজিতে এবং বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয় এবং আন্না বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রযুক্তি বিষয়ে শিক্ষাদান করেন।

রাজনৈতিক জীবন রাষ্ট্রপতিত্ব :

অটল বিহারী বাজপেয়ীর প্রধানমন্ত্রীত্ব কালে কে আর নারায়ণের স্থলাভিষিক্ত হয়ে ভারতের ১১তম রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হন এবং নির্বাচনে জয়লাভও করেন। ২০০২ সালের ২৫শে জুলাই থেকে ২০০৭ সালের ২৫শে জুলাই পর্যন্ত  রাষ্ট্রপতি পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। এ সময় তিনি কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণকাজের সাক্ষীও ছিলেন।

পুরস্কার ও সম্মাননা :

মিসাইল ম্যান এ পি জে আব্দুল কালাম তার ব্যক্তিগত কর্মকাণ্ড ও দেশ তথা জাতির অসামান্য উন্নয়নের খ্যাতি স্বরূপ পেয়েছেন বিভিন্ন পুরস্কার। তিনি ৪০টি দেশীয় বিশ্ববিদ্যালয় এবং ৭টি আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডক্টরেট উপাধি পেয়েছেন। ১৯৮১ সালে পেয়েছেন পদ্মভূষণ, ১৯৯০ সালে পেয়েছেন পদ্মবিভূষণ এবং  ভারতে বৈজ্ঞানিক গবেষণা এবং প্রতিরক্ষা প্রযুক্তির অসামান্য অবদানের জন্য ১৯৯৭ সালে পেয়েছেন ভারতরত্ন পুরস্কার। এছাড়াও তার নামে বিভিন্ন রাস্তা, বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ, সংস্থা, দ্বীপের নামান্তর করা হয়। ২০১৫ সালে ৮৪তম জন্মদিবস ডি আর ডি ও ভবনে কালাম মহাশয়ের স্মরণে ডাকটিকিটের প্রকাশ করেন।

শেষ জীবন :

এই কর্মপ্রয়াসী মানুষটি ২০১৫ সালের ২৭শে জুলাই মেঘালয়ের শিলং শহরে অবস্থিত ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্ট নামক প্রতিষ্ঠানে বসবাসযোগ্য পৃথিবীর বিষয়ে বক্তব্য রাখার সময় সন্ধ্যা ৬.৩০ নাগাদ হৃদরোগে আক্রান্ত হন পরে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে ৭.৪৫ নাগাদ পরলোক গমন করেন।

এ.পি.জে. আব্দুল কালামের জীবনী PDF

File Details :


File Name : A. P. J. Abdul Kalam Biography
Language : Bengali
No. of Pages : 02
Size : 0.4 MB

Also Check :
RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Recent posts

popular posts